-->
Type Here to Get Search Results !

What is Social networking?(সোস্যাল নেটওয়ার্কিং কি? (Social Networking):



সোস্যাল নেটওয়ার্কিং কি? (Social Networking):






বর্তমান বিশ্বে ইন্টারনেটের সাহায্যে যে   পরিষেবাগুলি পাওয়া যায় তারমধ্যে সোস্যাল নেটওয়ার্ক সাইটগুলির  চাহিদা সবচেয়য়ে বেশি। এধরননের কতগুললি সাাইট হল – 


facebook.com,twitter.com,orkut.com,MySpace.com,youtube.com ect .যান চলাচল ও যোগাযোগ ব্যবস্থা যখন আজকের অবস্থায় এসে পৌঁছায়নি,তখন   সোস্য্যাল    নেটওয়ার্কিং  বা আন্তঃসামাজিক জাল  একটি বিশেষ ভৌগোলিক অঞ্চলের মধ্যেই সীমাবদদ্ধ ছিল। ইন্টারনেট,ই-মেল,তাৎক্ষণিক বার্তা পরিষেবা এবং Grup চ্যাটিং আসার পর এই আন্তঃসামাজিক যোগাযোগ-জল এখন অনেক বেশি উন্নত ও ব্যপ্ত।


ব্যাবহারঃ সোস্যাল নেটওয়ার্কিং-এর সহায়তায় কোনো ব্যবহারকারী নিজের প্রোফাইল তৈরি করে নিজের পরিচিত বন্ধু-বান্ধব,আত্মীয় পরিজনের সাথে এবং সর্বোপরি অগণিত অপরিচিত ব্যক্তিবর্গের সাথে বন্ধুত,মতামত বিনিময়,কোনো বক্তব্য,বিভিন্ন তথ্য,ছবি,ভিডিও,গান,কবিতা ইত্যাদি আপলোড ও ডাউনলোড করতে পারে।









ইন্টারনেটের জনপ্রিয় হওয়ার সাথে সাথে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলোর সৃষ্টি হয় । 1997 সালে প্রথম সোস্যাল নেটওয়াকিং সাইটের আত্মপ্রকাশ,যার নাম ছিল ‘SixDegree.com’। এরপর 2001 সালে আসে ‘ryze.com’। 2004 সালে google নিয়ে আসে’Orkut’ । এরপর 2003 সালে মার্ক জুকেরবার্গ একটি ওয়েবসাইট চালু করে। ঘটনাক্রমে,তিনিই বানিয়ে ফেলেন’facebook.com’ । 2004 সালের মাঝামাঝি ফেসবুক কর্পোরেট সংস্থা হিসেবে স্বীকৃত পায়। বর্তমানে Facebook হল সর্বাধিক জনপ্রিয় সোস্যাল নেটওয়ার্ক সাইট।



সোস্যাল নেটওয়ার্কিং ব্যবহারের সুবিধা (Advantages of Social Networking):


নতুন নতুন মানুষের সাথে যোগাযোগ করা যায় ।

*     ইন্টারনেটে নিজস্ব জায়গা তৈরি করা যায় ।

*     এর সাহাজ্যে কোনো দ্রব্যের বিজ্ঞাপন দেওয়া যায় 

*     সোস্যাল নেটওয়ার্কি-এর সুবিধা হল এটি আমাদের সেই সব ব্যাক্তিদের সাথে যোগাযোগ করতে সাহায্যে করে যাদের সাথে আমাদের বিভিন্ন কারনে দীর্ঘদিন যোগাযোগ বিছিন্ন যেমন – বাল্যকালের কোনো স্কুলের বন্ধু,বা আগের কোনো সহকর্মী অথবা কোনো নিকট আত্মীয় ।

*     সারা বিশ্বের যেকোন প্রান্তের নতুন নতুন খবরাখবর সংগ্রহ করা যায় যা আমাদের জ্ঞান বর্ধনের সহায়ক



সোস্যাল নেটওয়ার্কিং ব্যবহারের অসুবিধা (Disadvantages of Social Networking):

*     কোন ব্যক্তি কারো বিষয়ে কুরুচীকর মন্তব্য করতে পারে ।

*     কোন জাতি বা ধর্মের প্র্রতি বিরূপ মন্তব্য করে তাদের অপমান করতে পারে। যেখান থেকে সমাজে হিংসাত্মক মনোভাব ছড়িয়ে পরতে পারে।

*     কোন ব্যাক্তি অন্য কারো আ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে পারে।



নেটওয়ার্ক নিরাপত্তা ব্যবস্থা (Networking Security)

নেটওয়ার্ক এর আত্ততাধীন সমস্ত কম্পিউটার (সার্ভার,ওয়ার্কস্টেশন) এর নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুদৃঢ় করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ।। নেটওয়ার্ক কি ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে তা নির্ভর করে নেটওয়ার্ক সিস্টেমের গুরুত্ব এবং কোন পর্যায়ের নিরাপত্তার প্রয়োজন তার ওপর এর পাশাপাশি নেটওয়ার্ক অপারেটিং সিস্টেম কিভাবে নিরাপত্তা ব্যবস্থাদি বাস্তবায়ন করবে সেই বিষয়টিও গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করতে হবে । নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা যুক্ত কম্পিউটার গুলিতে ভাইরাসের আক্রমণে,ফায়ারওয়াল ব্যবস্থা,নেটওয়ার্ক অপারেটিং সিস্টেমকে পাসওয়ার্ড দ্বারা সুরক্ষিত রাখতে না পারলে সমগ্র নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাটি বিকল হতে পারে।


                                             কম্পিউটার ভাইরাস কী ?

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.
'

Top Post Ad

Below Post Ad

Ads Section